• রোববার   ১৬ মে ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১ ১৪২৮

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় লকডাউনের মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের ফলমূল ও মিষ্টান্ন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ঈদে জনস্রোতে করোনায় নতুন ধাক্কা লাগার আশঙ্কা: ওবায়দুল কাদের লালমনিরহাটে ঈদের দিনে কৃষাণী`র ধান কেটে দিলো ছাত্রলীগ রংপুরে অনলাইনে পণ্য বিক্রির কথা বলে টাকা আত্মসাৎ, প্রতারক আটক

উইজডেন `টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ` দলে জায়গা হয়নি কোহলি-বাবরের!

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৪ মে ২০২১  

আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের বাকি আর মাত্র ১টি ম্যাচ। ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড ফাইনালেই নির্ধারিত হয়ে যাবে টেস্টের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন কারা হবে। ফাইনালের আগে 'ক্রিকেটের বাইবেল' খ্যাত উইজডেন ম্যাগাজিন ব্যক্তিগত পারফরমেন্সের নিরিখে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সেরা দল বেছে নিয়েছে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে সেরা ১১ জনের দলে নাম নেই প্রজন্মের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ভারতের বিরাট কোহলি ও পাকিস্তানের বাবর আজমের। জায়গা হয়নি ইংল্যান্ড দলনায়ক জো রুটেরও।

উইজডেনের বেছে নেওয়া সেরা একাদশে নেতৃত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের হাতে। তবে ফাইনালিস্ট ভারতের তিনজন ক্রিকেটার রয়েছেন ১১ জনের দলে। তিনজনের মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য নাম হল ঋষভ পন্ত, যাঁর হাতে উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে। বাকি দুই ভারতীয় হলেন ওপেনার রোহিত শর্মা এবং স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

ক্যাপ্টেন উইলিয়ামসন ছাড়াও অপর ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ড থেকে এই দলে সুযোগ পেয়েছেন অল-রাউন্ডার কাইল জেমিসন।

উইজডেনের বিচারে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সেরা দল

১. রোহিত শর্মা (১১ ম্যাচে ১০৩০ রান, ৪টি সেঞ্চুরি, ২টি হাফ-সেঞ্চুরি)।

২. দিমুথ করুণারত্নে (১০ ম্যাচে ৯৯৯ রান, ৪টি সেঞ্চুরি, ৪টি হাফ-সেঞ্চুরি)।

৩. মার্নাস ল্যাবুশান (১৩ ম্যাচে ১৬৭৫ রান, ৫টি সেঞ্চুরি, ৯টি হাফ-সেঞ্চুরি)। 

৪. স্টিভ স্মিথ (১৩ ম্যাচে ১৩৪১ রান, ৪টি সেঞ্চুরি, ৭টি হাফ-সেঞ্চুরি)।

৫. কেন উইলিয়ামসন (ক্যাপ্টেন) (৯ ম্যাচে ৮১৭ রান, ৩টি সেঞ্চুরি, ১টি হাফ-সেঞ্চুরি)।

৬. বেন স্টোকস (১৭ ম্যাচে ১৩৩৪ রান, ৪টি সেঞ্চুরি, ৩৪টি উইকেট)। 

৭. ঋষভ পন্ত (উইকেটকিপার) (১১ ম্যাচে ৬৬২ রান, ১টি সেঞ্চুরি, ৩৫টি ক্যাচ, ৫টি স্টাম্পিং)।

৮. কাইল জেমিসন (৬ ম্যাচে ৩৬টি উইকেট)।

৯. রবিচন্দ্রন অশ্বিন (১৩ ম্যাচে ৬৭টি উইকেট)।

১০. প্যাট কামিন্স (১৪ ম্যাচে ৭০টি উইকেট)।

১১. স্টুয়ার্ট ব্রড (১৭ ম্যাচে ৬৯টি উইকেট)।

দুর্ভাগ্যজনকভাবে যারা দলে সুযোগ পাননি

টিম সাউদি (১০ ম্যাচে ৫১টি উইকেট), জস হ্যাজেলউড (১১ ম্যাচে ৪০টি উইকেট), জো রুট (২০ ম্যাচে ১৬৭৫ রান), বাবর আজম (৯ ম্যাচে ৯৩২ রান), মোহম্মদ রিজওয়ান (১২ ম্যাচে ৭৪১ রান ও ৩২ উইকেট),  রবীন্দ্র জাদেজা (১০ ম্যাচে ৪৬৯ রান ও ২৮ উইকেট)।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –