• সোমবার   ১২ এপ্রিল ২০২১ ||

  • চৈত্র ২৯ ১৪২৭

  • || ২৯ শা'বান ১৪৪২

সর্বশেষ:
আপদকালীন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণে ৪৮৩ উপজেলায় ৩ লাখ টাকা করে অর্থ বরাদ্দ দিয়েছে সরকার জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় চরাঞ্চলের স্কুলের সাথে ফ্রান্সের মতবিনিময় চলতি সপ্তাহেই ২০০ শয্যার আইসিইউ হাসপাতাল প্রস্তুত হবে লকডাউনে রফতানিমুখী শিল্প কারখানা খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণে রংপুরে মাঠে নেমেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত

চলতি বছরেই দেশে ফাইভ`জি প্রযুক্তি চালুর চেষ্টা: জয় 

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৭ এপ্রিল ২০২১  

চলতি বছরের মধ্যে বাংলাদেশ ফাইভজি মোবাইল ফোন প্রযুক্তি চালু করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি-বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। মঙ্গলবার (০৬ এপ্রিল) ইউএস-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, ‘বাংলাদেশের অবকাঠামো অনেক প্রতিবেশী দেশের থেকে ভালো। আমরা ফাইভজি চালু করার দিকে নজর দিচ্ছি। চেষ্টা করবো, এ বছরই ফাইভজি চালু করার।’ তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশে প্রতি বছর ৬০ হাজার টেকনিক্যাল গ্র্যাজুয়েট বের হচ্ছেন। আমরা উদ্যোক্তা তৈরি করার দিকে নজর দিচ্ছি। বাংলাদেশে স্টার্ট-আপ তৈরির দিকেও নজর দিচ্ছি।’

দেশে দ্রুত আইটি উদ্যোক্তা বাড়ছে এবং বাংলাদেশের কিছু স্টার্ট-আপ কোম্পানি, যেমন: পাঠাও বা বিকাশ সারাবিশ্বে স্বীকৃতি পেয়েছে বলেও তিনি জানান। প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা বলেন, ‘আট থেকে ১০ বছর আগেও কেউ চিন্তা করেনি, আমাদের স্টার্ট-আপ কোম্পানিগুলোর মূল্য ১০০ কোটি ডলার হবে। তবে এটি কেবল শুরু। উইচ্যাট বা আলিবাবার মতো কোম্পানি বাংলাদেশে তৈরি হবে এবং এখানে ভেঞ্চার ক্যাপিটাল কোম্পানির বিনিয়োগ করার মতো যথেষ্ট সুযোগ আছে।’

নিম্ন ও মধ্যম আয়ের মানুষ যে ইলেকট্রনিক্স পণ্য ব্যবহার করে তার প্রায় সবগুলো বাংলাদেশে তৈরি হয় বলে তিনি জানান। জয় বলেন, ‘বাংলাদেশে ১৩ কোটি মোবাইল ফোন গ্রাহক আছে এবং এর ৯০ শতাংশ সেট দেশে তৈরি। এর মধ্যে স্মার্ট ফোন আছে। শুধু তাই নয়, স্যামসাংয়ের ফ্ল্যাগশিপ পণ্য নোট গ্যালাক্সি১০ এখন বাংলাদেশেই তৈরি হচ্ছে।’

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –