• রোববার   ২০ জুন ২০২১ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪২৮

  • || ১০ জ্বিলকদ ১৪৪২

সর্বশেষ:
একসঙ্গে ঘর পেল ৫৩ হাজার অসহায় পরিবার, বিশ্বে নজিরবিহীন দেশের প্রতিটি জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে- শিক্ষামন্ত্রী আজ থেকে হাইকোর্টের ৫৩ বেঞ্চে ভার্চুয়ালি বিচারকার্য ‘নারী ও শিশু ধর্ষণ মামলার বিচার দ্রুত নিস্পত্তি করতে হবে’ প্রথম দিন সিনোফার্মের টিকা নিলেন ৪৩২০ জন

রৌমারী-রাজিবপুরে প্রথমবারের মতো নৌ অ্যাম্বুলেন্স চালু 

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২১  

কুড়িগ্রামের ব্রহ্মপুত্র নদবেষ্টিত রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলায় চালু হয়েছে নৌ অ্যাম্বুলেন্স সেবা। এর মধ্য দিয়ে প্রথমবারের মতো এ সেবা পেতে যাচ্ছে দুই উপজেলার মানুষ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রৌমারী উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের বলদমারা ব্রহ্মপুত্র ঘাটে নৌ অ্যাম্বুলেন্স দুটির উদ্বোধন করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বন্দবেড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের সরকার, রৌমারী উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল্লাহ, ইউএনও আল ইমরান, ওসি মোন্তাছের বিল্লাহসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।

জানা গেছে, ২০১৯-২০ অর্থবছরের এলজিএসপি-৩ (লোকাল গর্ভন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট) এর বরাদ্দকৃত ৯ লাখ টাকা ব্যয়ে রোগী পরিবহনের জন্য নৌ অ্যাম্বুলেন্সটি কেনা হয়।

বন্দবেড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কাদের সরকার জানান, রৌমারী-রাজিবপুর উপজেলাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল এই নৌ অ্যাম্বুলেন্স। অবশেষে তাদের দাবি পূরণ হলো।

এর আগে, পপুলার জেনারেল হাসপাতাল কুড়িগ্রামের উদ্যোগে রৌমারী ঘাটে বুধবার আরেকটি নৌ অ্যাম্বুলেন্স উদ্বোধন করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন। ওই সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক অতিরিক্ত সচিব ও নৌ অ্যাম্বুলেন্সের উদ্যোক্তা বদরুল হাসান বাবুল, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. বোরহান উদ্দিন, ইউএনও আল ইমরান, রৌমারী উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল্লাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক রেজাউল ইসলাম মিনু প্রমুখ।

বদরুল হাসান বাবুল জানান, রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলার মানুষ চিকিৎসার জন্য জেলা সদরে নৌ পথে যাতায়াতে নানা বিড়ম্বনায় পড়ত। রোগী আনা-নেয়া করতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হতো। নৌ অ্যাম্বুলেন্স চালু হওয়ায় তাদের ভোগান্তি অনেক কমবে। এ অ্যাম্বুলেন্সে অক্সিজেন সিলিন্ডার, নেবুলাইজারসহ প্রাথমিক চিকিৎসার সব ধরনের সুবিধা রয়েছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, ব্রহ্মপুত্র নদবেষ্টিত রৌমারী ও রাজিবপুর উপজেলার মানুষকে দীর্ঘদিন কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল ও বিভিন্ন স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সেবা নিতে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে। এখন তাদের কষ্ট অনেকটাই লাঘব হবে।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –