• মঙ্গলবার   ২৮ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৪ ১৪২৯

  • || ২৮ জ্বিলকদ ১৪৪৩

সর্বশেষ:
পদ্মাসেতু জাতীয় সম্পদ, বিরোধিতাকারীরা জাতির শত্রু: হাইকোর্ট নিজের ভাগ্য নয়, জনগণের ভাগ্য বদলই একমাত্র লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল নিষিদ্ধ যুক্তরাজ্যকে এক লাখ রোহিঙ্গা নিতে অনুরোধ বাংলাদেশের বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতি পদ্মার গহীনে নিমজ্জিত: ওবায়দুল কাদের

চেহারা চিনে ফেলায় গৃহবধূ হত্যা, চোরের যাবজীবন

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৪ মে ২০২২  

চুরি করতে ঢোকার পর চেহারা চিনে ফেলায় গৃহবধূ রেহেনা বেগমের মাথায় আঘাত করে নৃশংস হত্যার ঘটনায় আসামি লাভলু মিয়াকে যাবজীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়া তাকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে দেড় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে রংপুরের বিশেষ জজ রেজাউল করিম এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২৬ জুলাই রাতে আসামি লাভলু মিয়া চুরির উদ্দেশ্যে রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার শংকরপুর মধ্যপাড়া গ্রামের গৃহবধূ রেহেনা বেগমের ঘরে প্রবেশ করে। ড্রয়ার খুলে টাকা চুরির পর রেহেনা বেগমের কানে থাকা স্বর্ণের দুল ছিনিয়ে নেয়। ঐ সময় লাভলুকে চিনতে পেরে নাম ধরে ডাক দেন রেহেনা বেগম। নিজেকে বাঁচাতে লাভলু তাকে পাথর দিয়ে মাথায় আঘাত করে হত্যা করে। এরপর লাশ বাড়ির অদূরে একটি বাঁশঝাড়ে ফেলে দেয়।

ঐ ঘটনায় নিহত রেহেনা বেগমের ছেলে খোরশেদ আলম মিঠাপুকুর থানায় হত্যা মামলা করে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ লাভলু মিয়াকে গ্রেফতার করলে সে দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেয়। পরে পুলিশ লাভলু মিয়ার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। আদালত ২১ জনের  সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি লাভলু মিয়াকে যাবজীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৪ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে দেড় মাসের কারাদণ্ড দেয়।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –