• সোমবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২০ ১৪২৯

  • || ১১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
প্রতিবন্ধীদের উন্নয়নে সকলকে কাজ করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী নভেম্বরে ১৩৪ কোটি টাকার চোরাচালান পণ্য উদ্ধার বিজিবির নিরাপদ সামুদ্রিক শিল্প উদ্যোগে আইএমও-এর সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ তৈরি পোশাকের ওপর ভর করে নতুন রেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ রংপুরে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত

‘ভূগর্ভস্থ পানি বেশি উঠালে বন্যার ঝুঁকি কমে’   

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০২২  

‘ভূগর্ভস্থ পানি বেশি উঠালে বন্যার ঝুঁকি কমে’                      
বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান ও গবেষক ড. আবু রেজা তৌফিকুল ইসলাম বলেছেন, বাংলাদেশের আবহাওয়া নিয়ে সায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় উঠে এসেছে ভূগর্ভস্থ পানি বেশি উঠালে ওই এলাকায় বন্যার ঝুঁকি কমে যায়। ভূগর্ভস্থ পানি উঠালে পানির স্তর নিচে নেমে যাওয়ার কথা থাকলেও উল্টো আশীর্বাদস্বরূপ বন্যার সময় ভূগর্ভস্থ পানি চুষে নিয়ে তা পূরণ হয়।

গতকাল রোববার (২০ নভেম্বর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ায় জলবায়ু পরিবর্তন এবং মানবাধিকারবিষয়ক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, উত্তরবঙ্গকে বলা হয় বন্যার আঁতুড়ঘর। প্রতিবছর লাখ লাখ মানুষ বন্যাকবলিত হয়ে পড়ে। আমরা যদি বাংলাদেশের নদীগুলোকে যথাযথ ব্যবহার করতে পারি তাহলে বাংলাদেশ থেকে বন্যা নিরসন করা সম্ভব। বৈশ্বিক তাপমাত্রা দিন দিন বাড়ছে। গত ১শ বছর আগে যে তাপমাত্রা ছিল তা এখন নেই। এই একবিংশ শতাব্দীতে পৃথিবীর তাপমাত্রা ৪-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস বৃদ্ধি পাবে। তখন আমাদের অবস্থা কি হবে। আমরা কি চিন্তা করেছি?

ড. আবু রেজা তৌফিকুল ইসলাম বলেন, ভালো পরিবেশে থাকা প্রতিটি মানুষের অধিকার। আমরাই পারি আমাদের পরিবেশকে ঠিক রাখতে। এতে যুবসমাজ বড় ভূমিকা পালন করতে পারে। তাই আমাদের সচেতন থাকতে হবে। পরিবেশ নিয়ে ভাবতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ওমর ফারুক বলেন, ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করলেই আবহাওয়া ও জলবায়ুকে রক্ষা করা সম্ভব। আমাদের নিজেদের সচেতন হতে হবে এবং অন্যকে সচেতন করতে হবে। একদিনে এ পরিবর্তন সম্ভব নয়। আমরা পরিবেশ নিয়ে সচেতন হলে আমাদের পরবর্তী প্রজন্ম একটি ভালো পরিবেশ পাবে। আমরা যারা জলবায়ু পরিবর্তনে বিপদগ্রস্থ হচ্ছি সেটার জন্য আমরা দায়ী নয়। আমরা আরেকজনের অপরাধের শাস্থি পাচ্ছি। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে দুঃখজনক ব্যাপার। তাই আমাদের সকলকে মিলেমিশে পরিবেশের জন্য কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ক্লাইমেট জাস্টিজ এন্ড হিউম্যান রাইটস-এর রংপুর বিভাগীয় কো-অর্ডিনেটর আসফাক সাজু, প্রোগ্রাম অফিসার এসজেড অপু প্রমুখ।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –