• সোমবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ১২ ১৪২৮

  • || ১৯ সফর ১৪৪৩

সর্বশেষ:
বলিষ্ঠ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আগামীকাল বর্তমান সরকার অসম্প্রদায়িক রাজনীতিতে বিশ্বাসী: শিল্পমন্ত্রী যত বেশি গবেষণা হবে তত বেশি সফলতা আসবে: পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহস আমাদের অনুপ্রেরণা-উৎসাহ জোগায়: নৌপ্রতিমন্ত্রী হাতীবান্ধায় বাড়ির পাশে বসে থাকা অবস্থায় কৃষককে কুপিয়ে হত্যা

খালি পেটে ঘুমানো ঘটাতে পারে মৃত্যু 

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩১ আগস্ট ২০২১  

সুস্থ থাকার জন্য খাবার খাওয়া জরুরি। তবে তা অবশ্যই হতে হবে পরিমাণমতো। নইলে অতিরিক্ত খাবার স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর হতে পারে। আবার একেবারে কম খাওয়াও স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী নয়। আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন, যারা রাতের খাবার গ্রহণে অবহেলা করেন। ওজন বেড়ে যাবে এই ভয়ে, অথবা ক্লান্তির কারণ ঘুম চলে আসে সেই কারণে।
যদিও রাতের খাবার বেশি খাওয়া ঠিক নয়, একথা কম-বেশি সবারই জানা। কিন্তু রাতে একেবারেই না খেয়ে ঘুমানো মোটেও বুদ্ধিমানের কাজ নয়। এটি একটি অস্বাস্থ্যকর অভ্যাস। এটি ওজন কমাতে কিংবা সুস্থ রাখতে সাহায্য করে না। রাতে না খেয়ে ঘুমাতে যাওয়া ভীষণ ক্ষতিকর অভ্যাস। এটি শারীরিক বিপর্যস্ততার কারণ হতে পারে। নিয়মিত না খেয়ে ঘুমাতে গেলে তা ঘটাতে পারে মৃত্যুও। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক খালিপেটে ঘুমাতে গেলে কী কী ক্ষতি হয়-

ঘুমে সমস্যা দেখা দেয়

না খেয়ে ঘুমাতে গেলে তা ঘুমে সমস্যার সৃষ্টি করবে। ঘুম গাঢ় হবে না, বারবার ঘুম ভেঙে যাবে। কারণ শরীরে খাবারের প্রয়োজন হবে, সে ঠিকভাবে কার্যক্রম চালিয়ে যেতে পারবে না। ফলে ঘুমে বিঘ্ন ঘটবে। ঘুমে সমস্যা হলে সারাদিন তার প্রভাব পড়বে। এটি ওজন বেড়ে যাওয়া, মাথাব্যথাসহ আরো অনেক সমস্যার কারণ হতে পারে।

পুষ্টির অভাব দেখা দেয়

আপনি যদি রাতে না খেয়ে ঘুমাতে যান তবে শরীরে পুষ্টির ঘাটতি তৈরি হবে। কারণ সঠিক পরিমাণ পুষ্টি পেতে আমাদের তিনবেলা খাওয়া উচিত, এবং এর অন্তত দুইবার হালকা নাস্তা খাওয়া উচিত। চিকিত্সকরা বলেন, শরীরে ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন বি১২ ও ভিটামিন ডি থ্রি প্রয়োজন। তাই রাতের খাবার বাদ দিলে পরবর্তীতে তা অপুষ্টির কারণ হতে পারে।

ওজন বেড়ে যায়

ওজন কমানোর জন্য অনেকে রাতে না খেয়েই ঘুমাতে চলে যান। এটি একেবারেই ভুল ধারণা। এভাবে না খেয়ে থাকলে ওজন তো কমেই না উল্টো আরো বেড়ে যায়। রাতে খাবারের পরিমাণ কমিয়ে দেওয়া ভালো, তবে একেবারে খালি পেটে থাকা ঠিক নয়। সারারাত খালি পেটে থাকলে সকালে খাবারের চাহিদা বেড়ে যায়, তাতে ওজন আরো বেড়ে যাওয়ার ভয় থাকে।

শক্তির অভাব দেখা দিতে পারে

অনেকে ভাবেন, রাতে পরিশ্রমের কাজ নেই বলে খাবারেরও প্রয়োজন নেই। আসলেই কি তাই? চিকিৎসকেরা বলেন, আমাদের শরীর প্রতি মুহূর্তেই শক্তি ব্যবহার করে এবং ক্যালরি খরচ করে। তাই শারীরিক কার্যক্রম সঠিকভাবে সম্পন্ন করার জন্য প্রয়োজন পড়ে জ্বালানির। আর রাতে খাবার না খেলে সেই জ্বালানিতে সংকট তৈরি হয়। ফলে দেখা দেয় শক্তির অভাব।

মেটাবোলিজমের ক্ষতি হয়

প্রতি রাতে না খেয়ে ঘুমিয়ে পড়লে আমাদের মেটাবোলিজম ক্ষতিগ্রস্ত হয়। নষ্ট হয়ে যায় শরীরের ইনসুলিনের লেভেল। এটি শরীরের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হরমোন। এর লেভেল নষ্ট হয়ে গেলে ডায়াবেটিস দেখা দেবে। এছাড়া কোলেস্টেরল ও থাইরয়েড লেভেলেও ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে। সঠিক সময়ে খাবার না খেলে হরমোন লেভেল ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন রোগ দেখা দেবে।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –