• মঙ্গলবার   ২৮ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১৪ ১৪২৯

  • || ২৮ জ্বিলকদ ১৪৪৩

সর্বশেষ:
পদ্মাসেতু জাতীয় সম্পদ, বিরোধিতাকারীরা জাতির শত্রু: হাইকোর্ট নিজের ভাগ্য নয়, জনগণের ভাগ্য বদলই একমাত্র লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল নিষিদ্ধ যুক্তরাজ্যকে এক লাখ রোহিঙ্গা নিতে অনুরোধ বাংলাদেশের বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতি পদ্মার গহীনে নিমজ্জিত: ওবায়দুল কাদের

কুড়িগ্রামে দুই দিনের সফরে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১ জুন ২০২২  

জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচি (ইউএনডিপি) এবং লিঙ্গ সমতা এবং নারীর ক্ষমতায়নের জন্য জাতিসংঘের সংস্থা (ইউএন ওমেন) এর কুড়িগ্রামে চলমান প্রকল্পগুলো পরিদর্শনে ২ দিনের সফরে কুড়িগ্রাম এসেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইডেনের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্দ্রা ব্রেগ ভন লিন্ডে।

গতকাল মঙ্গলবার (৩১ মে) দুপুরে কুড়িগ্রাম সদরের বেলগাছা ইউনিয়নের ত্রিমোহনী বাজারে ইউএনডিপি'র স্বপ্ন প্রকল্পের কারিগরি সহযোগিতায় চলমান কল্যাণী নারী কল্যাণ সমবায় সমিতি, কল্যাণী নিরাপদ স্যানিটারি ন্যাপকিন কারখানা এবং কল্যাণী বুটিকস্ পরিদর্শন করার মধ্য দিয়ে তিনি কুড়িগ্রাম সফর শুরু করেন।

তার সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন সুইডেন দূতাবাসের পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো. মাহবুবুর রহমান, মার্কেট ডেভেলপমেন্ট বিষয়ক প্রোগ্রাম অফিসার ইকরামুল এইচ. সোহেল এবং স্বপ্ন ও উইং, ইউএনডিপি'র জাতীয় ব্যবস্থাপক কাজল চ্যাটার্জি, প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর মো. ইফতেখার হোসেন সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

কুড়িগ্রামে তার সফরের শুরুতে স্বপ্ন প্রকল্পের কল্যাণী নারী সমবায় সমিতি পরিদর্শনে এসে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। এছাড়াও ওই সমিতির উদ্যোগে স্যানিটারি ন্যাপকিন উৎপাদন কারখানা পরিদর্শন করে অভিভূত হন তিনি। পাশাপাশি সমিতির নারীদের নিজস্ব দক্ষতায় উৎপন্নকৃত নকশিকাঁথাসহ বিভিন্ন ধরনের পোশাকের উৎপাদন ও বিক্রয়কেন্দ্র 'কল্যাণী বুটিকস্' পরিদর্শন করে এই উদ্যোগের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার ব্যাপারে পরামর্শ দেন। এসময় সুইডেনের রাষ্ট্রদূতকে তাদের নিজেদের তৈরি পোশাক, নকশিকাঁথা এবং ব্যাগ উপহার দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, গত বছর ইউএনডিপি'র স্বপ্ন প্রকল্প একটি সমবায় প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনা করেছে যেখানে প্রকল্পের সুবিধাভোগী এবং স্থানীয় নারীরা, যাদের সেলাইয়ের প্রশিক্ষণ রয়েছে, তারা স্যানিটারি ন্যাপকিন তৈরির জন্য কাজ করছে। কল্যাণী স্যানিটারি ন্যাপকিন প্রবর্তনের মাধ্যমে মাসিক স্বাস্থ্য ও স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে গণসচেতনতা সৃষ্টির উদ্যোগ নিয়েছে তারা। প্রকল্পটি সমবায় প্রতিষ্ঠা করে এবং স্যানিটারি প্যাড তৈরি ও বিক্রি শুরু করে। বর্তমানে ২০ জন নারী সক্রিয় সদস্য হিসেবে কাজ করছেন। মাসিকের স্বাস্থ্যবিধি এবং স্যানিটারি প্যাড ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে প্রায় ৫০ জন স্বেচ্ছাসেবক নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এখন পর্যন্ত, তারা স্থানীয় বাজারে প্রায় ৫০ হাজার প্যাকেট স্যানিটারি ন্যাপকিন বিক্রি করেছে।

দুই দিনের এই সফরে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলা ও চিলমারী উপজেলার বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শন করবেন।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –