ব্রেকিং:
বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় বুয়েটের বহিষ্কৃত ২০  শিক্ষার্থীর মৃত্যুদণ্ড ৫ জনের যাবজ্জীবনের আদেশ দিয়েছেন আদালত
  • বৃহস্পতিবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৮

  • || ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
পঞ্চগড়ে একসাথে তিন সন্তানের জন্ম দিলেন দরিদ্র মা ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক আরও এগিয়ে নিতে জোর দুই পররাষ্ট্র সচিবের জলঢাকায় ছোট বোনকে বাঁচাতে গিয়ে বড় বোনের মৃত্যু কোভিড চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা দরকার: প্রধানমন্ত্রী বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যায় ২০ মৃত্যুদণ্ড, যাবজ্জীবন ৫

গণ-অনশনেও বিএনপির কোন্দল দেখে হতাশ তৃণমূল নেতাকর্মীরা

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৪ নভেম্বর ২০২১  

গণ-অনশনের মতো একটি কর্মসূচিতেও নরসিংদীতে বিএনপির কোন্দল দেখে হতাশ হয়েছেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা। গত ২০ নভেম্বর বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও বিদেশে উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করার দাবিতে নরসিংদীতে পৃথক দুটি স্থানে এ কর্মসূচি পালিত হয়। কোন্দলের কারণে পৃথক দুটিস্থানে এ কর্মসূচি পালন করেছেন জেলা বিএনপির নেতারা।
 
এ দিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চিনিশপুরের জেলা বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে গণ অনশন কর্মসূচি পালন করেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি খায়রুল কবির খোকনের নেতৃত্বাধীন একটি গ্রুপ। 

অপরদিকে জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ হারুনের নেতৃত্বে শহরের সাটিরপাড়া সুরভী সিনেমা হলের সামনে পৃথকভাবে এ কর্মসূচি পালন করে বিএনপির অপর একটি অংশ।

চিনিশপুরে অনুষ্ঠিত গণ অনশন কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন। এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সাবেক এমপি বেগম রোকেয়া আহম্মেদ লাকী, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক দ্বীন মোহাম্মদ দীপু, দফতর সম্পাদক আমিনুল হক বাচ্চু, শহর বিএনপির সহ-সভাপতি সম্পাদক কবির আহম্মেদ প্রমুখ।

অন্যদিকে শহরের সাটিরপাড়া সুরভী সিনেমা হলের সামনে জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের ব্যানারে পৃথকভাবে গণ অনশন কর্মসূচি পালন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ হারুন। 

জেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি বোরহান উদ্দিনের সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য দেন শহর বিএনপির সাবেক সভাপতি বাবুল সরকার, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান সরকার, সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহানশাহ শানু প্রমুখ।

এ বিষয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন বলেন, জেলা বিএনপির ব্যানারে পৃথক কর্মসূচি সম্পর্কে আমি অবগত নই। মূল ধারার বাইরে গিয়ে কোনো কর্মসূচি পালন করা দলের শৃঙ্খলা বিরোধী কাজ।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে নরসিংদী জেলা বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের কমিটি ও নেতৃত্ব নিয়ে নেতাকর্মীদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছিল। সম্প্রতি পালিত হওয়া এ গণ-অনশন কর্মসূচির মধ্যদিয়ে বিষয়টি প্রকাশ্যে এলো। 

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –