• রোববার ১৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

রাজীবপুরে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূকে নির্যাতনে হত্যার অভিযোগ

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

      
কুড়িগ্রামের রাজীবপুরে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতন করে মেরিনা খাতুন (২২) নামে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার মধ্যরাতে কোদালকাটি ইউনিয়নের কোদালকাটি কলেজপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে আটজনের নামে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন নিহতের বাবা মহির উদ্দিন। 

অভিযুক্তরা হলেন নিহতের স্বামী গাজিবর রহমান (২৫), শ্বশুর তোফাজ্জল হক (৫০), শাশুড়ি শিরিনা খাতুন (৪২), ননদ বিলকিস খাতুন (২৭), চাচা শ্বশুর মক্কা মিয়া (৪২), একই পরিবারের সদস্য সাজিদুল হক (৩৬), নূরুল হক (৬০) ও আব্দুল আউয়াল (৬২)।

নিহত মেরিনা খাতুন কোদালকাটি ইউনিয়নের দক্ষিণ চর সাজাই গ্রামের মহির উদ্দিনের মেয়ে। তাঁর বাবার অভিযোগ, তিন বছর আগে গাজিবর রহমানের সঙ্গে বিয়ে হয় মেরিনার। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে মোটা অঙ্কের যৌতুকের জন্য অমানুষিক নির্যাতন করে আসছিলেন অভিযুক্তরা। এ কলহের মধ্যেই তিনি (মেরিনা খাতুন) এক ছেলে সন্তানের মা হন। এরপর যৌতুকের জন্য নির্যাতনের মাত্রা আরও বেড়ে যায়। গত মঙ্গলবার রাতেও তাঁর মেয়েকে নির্যাতন করা হয়। এতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন মেরিনা। এরপর বুধবার ভোরে তাঁকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক আব্দুস সামাদ বলেন, তাঁকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

রাজীবপুর থানার ওসি মোজাহারুল ইসলাম জানান, অভিযোগ পেয়েছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়ছে। তদন্ত প্রতিবেদন পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –