• শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

ফুলবাড়ীতে ভারতীয় হনুমান কুড়িগ্রামে দেখতে মানুষের ভিড়          

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০২৪  

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় লোকালয়ের গাছে গাছে ঘুরে বেড়াচ্ছে ভারতীয় একটি হনুমান। সোমবার শেষ বিকেলে উপজেলার শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের ফকিরপাড়া ছড়ারপাড় এলাকায় হনুমানটিকে গাছের মগ ডালে ডালে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায়। এদিকে লোকালয়ে বন্যপ্রাণী আসার খবর ছড়িয়ে পড়লে হনুমানটিকে এক নজর দেখার জন্য ওই এলাকায় শতশত শিশু-কিশোরসহ উৎসুক জনতার ভীড় জমে যায়।

জানা গেছে, সোমবার শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের ফকিরপাড়া ছড়ারপাড় এলাকার আব্দুস সালাম খন্দকারের বাড়ীর পাশে একটি মেহগনি গাছের মগডালে হনুমানটিকে বসে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। হঠাৎ গাছের ডালে হনুমান বসে থাকতে দেখে চিৎকার চেচামেচি শুরু হয়ে যায়। এসময় মানুষের সোরগোল পড়ে গেলে  আশপাশের এলাকা থেকে শিশু কিশোরসহ বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ ছুটে আসতে থাকে। বন্যপ্রাণী এ হনুমানটিকে দেখার জন্য মুহুর্তের মধ্যে ওই এলাকায় শতশত উৎসুক জনতার ভীড় জমে যায়। হনুমান দেখে আনন্দে লাফালাফি করতে থাকে স্থানীয় শিশু কিশোররা। লোকজনের ভীড় বেড়ে গেলে ওই গাছে উঁচু ডালে অবস্থান নেয় হনুমানটি।

স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি জানান, ফুলবাড়ী উপজেলায় কোন বনাঞ্চল নেই। তবে ভারতীয় সীমান্ত নিকটবর্তী। হনুমানটি হয়তো দলছুট হয়ে কিংবা খাবারের খোঁজে সীমান্ত পেরিয়ে এ এলাকায় চলে এসেছে। তবে এই হনুমান টি প্রথমে সীমান্তবর্তী গোরকমন্ডলে দেখা গেছে। এরপর নাওডাঙ্গা হয়ে শিমুলবাড়ীতে আসে। মানুষজন হনুমানের ভয়ে আতংকে থাকলেও এ পর্যন্ত কোন মানুষের ক্ষতি হয়নি।

উৎসুক জনতার মধ্যে বিশাদ মিয়া, আব্দুল বাতেন বলেন, সার্কাস বা চিড়িয়াখানায় হনুমান দেখেছি কিন্তু আজ বাড়ীর পাশের গাছে হনুমান বসে থাকতে দেখে খুবই ভালো লাগছে। মনে হয় দলছুট হয়ে হনুমানটি এদিকে এসেছে । জানামতে গতকাল রোববার থেকে হনুমানটি এ সীমান্ত এলাকায় ঘোরাঘুরি করছে।

এ বিষয়ে ফুলবাড়ী উপজেলা বন কর্মকর্তা নবীর উদ্দিন বলেন, শিমুলবাড়ী ইউনিয়নের ছড়ারপাড় এলাকায় গাছে গাছে একটি হনুমান ঘুরে বেড়ানোর খবর পেয়েছি।  ধারণা করা হচ্ছে হনুমানটি দলছুট হয়ে ভারত থেকে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে চলে এসেছে। কারন ফুলবাড়ী উপজেলায় কোন বনাঞ্চল নেই। উৎসুক জনতার প্রতি অনুরোধ কেউ যেন হনুমানটির দিকে ঢিল না ছোড়ে। আশা করছি দুই এক দিনের মধ্যে হনুমানটি যেখান থেকে এসেছে সেখানে আপনাআপনি ফিরে যাবে।

 

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –