• শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১ ১৪৩১

  • || ০৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

`পাকিস্তানপন্থীরা আমাদের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে কথা বলে`           

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৫ মার্চ ২০২৩  

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম বলেছেন, ১৯৭১ সালে পাকিস্তানকে সমর্থন দেওয়া অনেক রাষ্ট্র এখন বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে কথা বলে। তারা গণতন্ত্র ও আইনের শাসনের কথা বলে। আজ আমরা এই গণহত্যা দিবসে একাত্তরের পাকিস্তান পন্থীদের দিকে তাকিয়ে থাকবো, দেখবো তারা এ বিষয়ে (গণহত্যা) কী বলে।

শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশ গণহত্যা দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত এক সেমিনারে এসব কথা বলেন তিনি।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, বৈশ্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি বা যে কারণেই হোক ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানকে অনেক রাষ্ট্র সমর্থন দিয়েছিল। সেই রাষ্ট্রগুলো এখন পৃথিবীতে গণতন্ত্র এবং আইনের শাসনের প্রতিষ্ঠার জন্য খুব শক্ত ও জোরালো কথা বলে। তারা অনেক রাষ্ট্রকে তাগাদা দিয়ে থাকে। সেই রাষ্ট্রগুলো আমরা না চাইলেও বাংলাদেশের অনেক অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে কথা বলে।

তিনি আরো বলেন, তারা এরই মধ্যে মিয়ানমারের ঘটনাপ্রবাহকে গণহত্যা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। কিন্তু যেখানে ৩০ লাখ মানুষ শহিদ হয়েছিল, সেই সত্যকে পাশ কাটিয়ে সমসাময়িক বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠা, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা কোনো কিছুই সম্ভব নয়। যদি না আমাদের ঐতিহাসিক অবস্থানকে স্বীকার করে না নেয়া হয়। সেই ঘটনার ৫২ বছর পর বিষয়গুলোকে স্বীকার করলে কোনো রাষ্ট্র ছোট হবে না। বর্তমানে বিশ্বের বিবদমান একাধিক রাষ্ট্র সেদিন গণহত্যার পক্ষেই ছিল। তারা অব্যাহতভাবে পাকিস্তানের মিলিটারিকে অস্ত্রের যোগান দিয়ে গেছে।

শাহরিয়ার আলম বলেন, পাকিস্তানকে, ৫২ বছর আগের সেই স্মৃতি এখনো ১৭ কোটি মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে আছে। আবেগের বশবর্তী হয়ে নয়। বন্ধুপ্রতিম রাষ্ট্র হিসেবে আমরা তাদের প্রতি আহ্বান জানাব, বাংলাদেশের এই গণহত্যাকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি আদায়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করুন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, এশিয়া জাস্টিস অ্যান্ড রাইটসের কো-ফাউন্ডার ব্যারিস্টার প্যাট্রিক বার্জেস, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শাহজাহান খান, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক প্রমুখ।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –