• রোববার ১৯ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৫ ১৪৩১

  • || ১০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

কৃষি গুচ্ছের ভর্তি পরীক্ষা শুরু

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৫ আগস্ট ২০২৩  

দেশের আটটি সরকারি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে একযোগে গুচ্ছপদ্ধতিতে স্নাতক প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে। শনিবার (৫ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টায় পরীক্ষা শুরু হয়েছে, চলবে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত।

রাজধানী ঢাকার শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (শেকৃবি) কেন্দ্রে ৪৪ হাজার ৩৫৯ জন পরীক্ষার্থী রয়েছেন। তার মধ্যে শেকৃবিতে ৭ হাজার ৫০০, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) উপকেন্দ্রে ২৬ হাজার ৮১৭ এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) উপকেন্দ্রে ১০ হাজার ৪২ জন পরীক্ষার্থী রয়েছেন।

ঢাকার বাইরের কেন্দ্রগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) ১২ হাজার ৬২০ জন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরকৃবি) ৭ হাজার, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি) ৪ হাজার, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এবং পশুবিজ্ঞান বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে ২ হাজার পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। এছাড়াও সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিকৃবি) ৪ হাজার ২০০ জন, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (খুকৃবি) ২ হাজার এবং হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (হকৃবি) কেন্দ্রে ৪১১ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন।

সরেজমিনে রাজধানীর শেকৃবি কেন্দ্রে দেখা যায়, যানজটের ভোগান্তি এড়াতে নির্ধারিত সময়ের অনেক আগেই কেন্দ্রে এসে অপেক্ষা করছেন অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা। ভোগান্তি এড়াতে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেট খুলে দেওয়া হয় সকাল সাড়ে ৯টায়। শিক্ষার্থীরা যেন ঘড়ি, ব্যাগ, মোবাইল ফোনসহ যেকোনো ধরনের ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে না পারেন সেদিকে কড়া নজর রাখছে স্কাউট। ভবনের গেট দিয়ে রুমে প্রবেশের সময়ই এসব নিশ্চিত করে কর্তৃপক্ষ।

পরীক্ষা শুরুর আগে কেন্দ্রের বাইরে কথা হয় ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থী ফখরুল কবিরের সঙ্গে। জাগো নিউজকে তিনি বলেন, ঢাকায় বেশিরভাগ সময়ে যানজটের কারণে ভোগান্তিতে পড়তে হয়। তাই আগেই কেন্দ্রে চলে এসেছি। প্রস্তুতি ভালো নিয়েছি, আশা করছি ভালো পরীক্ষা দিতে পারবো।

আট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় এবার তিন হাজার ৫৪৮ শিক্ষার্থীকে ভর্তির সুযোগ দেবে। তার মধ্যে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে এক হাজার ১১৬, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩৭৫, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৬৯৮, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৪৩, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৪৫, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৩১, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৫০ ও হবিগঞ্জ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৯০টি আসন রয়েছে।

এমসিকিউ পদ্ধতিতে ১০০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষায় এইচএসসি বা সমমান পর্যায়ের ইংরেজিতে ১০, প্রাণিবিজ্ঞানে ১৫, উদ্ভিদবিজ্ঞানে ১৫, পদার্থবিজ্ঞানে ২০, রসায়নে ২০ এবং গণিতে ২০ নম্বরের প্রশ্ন থাকার কথা। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য শূন্য দশমিক ২৫ নম্বর কাটা যাবে।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –