• বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৯ ১৪৩১

  • || ১৪ জ্বিলকদ ১৪৪৫

ভ্রু ম্যাজিক 

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৩ এপ্রিল ২০২৪  

ডাগর ডাগর চোখ চান? তাহলে ভ্রুতে একটু এক্সপেরিমেন্ট করলে দোষ কী? তবেই তো চোখের উপর থাকবে ঘন ভ্রু জোড়া। সুন্দর চোখকে করে তুলবে আরও লাস্যময়ী। তবে চাই চুলের মতোই যত্ন। জেনে নেওয়া যাক ঘন ভ্রু পেতে বাড়িতেই কীভাবে যত্ন নেওয়া উচিত।

মোটা-ঘন ভ্রু এখন ট্রেন্ড। ৯০ দশকের চিকন এবং পেনসিলে আঁকা ভ্রুকে পেছনে ফেলে মোটা ভ্রু নিয়ে এসেছে নতুন স্টাইল। এখন আর আঁকিয়ে ভ্রুতে মজে না সুন্দরীরা। প্রাকৃতিকভাবে মোটা ও ঘন ভ্রু পেতে যতটা সম্ভব কম ছাঁটুন। বার বার প্লাক বা ওয়াক্সিংয়ে ভ্রুর স্বাভাবিক বিকাশে ব্যাঘাত ঘটে। এ প্রসঙ্গে ওমেন্স ওয়ার্ল্ডের পরিচালক ও বিউটি এক্সপার্ট ফারনাজ আলম বলেন, ‘ভ্রু প্লাক বা ওয়াক্স করালে নতুন ভ্রু গজালেও সবদিকে সমানভাবে বড় হয় না। সাধারণত ২-৩ মাস সময় লেগে যায় ভ্রু ভালোভাবে বড় হতে। তবে ভ্রু মোটা করতে চাইলে ভ্রুতে হাত না দেওয়াই ভালো।’ 

প্লাক বা ওয়াক্সিং
ঘন ভ্রু চাইলে কিছু দিন প্লাকিং বা ওয়াক্সিং থেকে বিরত থাকুন। বাড়িতেও টুইজারের সাহায্যে ভ্রু তুলবেন না। ঘন ঘন ভ্রু প্লাক করলে ভ্রু সরু হয়ে যায়। মেকআপের সময় ভ্রু অগোছালো লাগলে কনসিলারের সাহায্যে অতিরিক্ত ভ্রু ঢেকে দিন।

এক্সফোলিয়েটিং

নিয়মিত এক্সফোলিয়েট করুন। ভ্রু ঘন হবে। এতে ত্বকের উপরিভাগে রোমের বৃদ্ধি সহজ হয়। বেবি ব্রাশের সাহায্যে দিনে দুবার ভ্রু ব্রাশ করতে থাকুন। যে দিকে ভুরুর গ্রোথ সে দিকে ব্রাশ করবেন।

ন্যাচারাল হেয়ার গ্রোথ

অলিভ অয়েল, ভিটামিন ই অয়েল ও ক্যাস্টর অয়েল কিউ টিপের সাহায্যে ভ্রুতে লাগান। এতে শুধু যে ভ্রু হবে তা নয়, ভ্রুর স্বাস্থ্যও ভালো থাকবে।

সুষম আহার

ডায়েটে রাখুন পর্যাপ্ত পরিমাণ প্রোটিন, ভিটামিন এ, ই এবং কে, আয়রন, জিঙ্ক, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ও এসেনশিয়াল ফ্যাটি অ্যাসিড। এতে ভ্রু তথা সমগ্র চুলের স্বাস্থ্য ভালো থাকে। চিনি খাওয়া কমিয়ে দিন। চিনির অ্যাসিডিক উপাদান ভিটামিন ও মিনারেল কমিয়ে চুল রুক্ষ করে দেয়।

সিরাম

সিরাম ভ্রু ঘন করতে সাহায্য করে। বাজারে হরেক রকমের সিরাম থেকে পছন্দমতো বেছে নিন।

মোটা ভ্রুর পরিচর্যা

ট্রেন্ডের সঙ্গে তালমিলিয়ে নজরকাড়া ভ্রু রাখার জন্য প্রয়োজন এর সঠিক যত্ন-আত্তি। ভ্রুর এড়িয়া হাইড্রেটেড এবং পরিপুষ্ট রাখতে ময়েশ্চার প্রয়োজন। আর যেহেতু শীতকাল, তাই পেট্রোলিয়াম জেলিই হতে পারে বেস্ট অপশন। চেষ্টা করুন দিনে দুই-তিনবার ভ্রুতে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগানোর। রাতে ঘুমানোর সময় ভ্রুর জায়গায় ভ্যাসলিন লাগিয়ে নিন। কয়েক দিনেই মিলবে সুফল। ভ্রুর ঘনত্ব বাড়বে। তবে দিনে ভ্যাসলিন এড়িয়ে চলুন। সম্ভব হলে একটি কটন বলে জলপাই, বাদাম, ক্যাস্টর বা নারকেল তেলে ডুবিয়ে ভ্রুতে হালকাভাবে ম্যাসাজ করুন। প্রতিদিন অলিভ অয়েল ম্যাসাজেও উপকার পাবেন। এ ছাড়া পিয়াজ ছেঁচে এর রস ভ্রুর নিচে বার বার লাগালে ভ্রু সহজেই বড় হয়। ভ্রুর ত্বকের মৃতকোষ নতুন করে ভ্রু গজাতে বাধা হতে পারে। হাতের কাছেই রয়েছে সমাধান। সেক্ষেত্রে নরম পুরনো টুথব্রাশ পানিতে ভিজিয়ে নিয়ে তা দিয়ে ভ্রু ভালোভাবে আঁচড়ে নিন, এতে মৃতকোষ পরিষ্কার হয়ে নতুন চুল উঠতে সাহায্য করবে।

ভ্রু ও পাপড়ি পরামর্শ

— মেকআপের সময় ভ্রু ঘন দেখানোর জন্য কালো বা বাদামি আইব্রাও পেনসিল, ব্ল্যাক ডাস্ট পাউডার ইত্যাদি দিয়ে ভ্রু এঁকে মোটা দেখানো যায়।

— ভ্রু আঁকার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন। ভ্রুর শুরুতে হালকা করে, মাঝের অংশ সামান্য গাঢ় এবং শেষে চিকন করে আনতে হবে।

— পাপড়ি ঘন দেখানোর জন্য মাসকারা তো সব সময় ব্যবহার করা যায়। কয়েক পরত ব্যবহার করলে তা আরও ঘন দেখাবে। তবে প্রতি পরতে মাসকারা দেওয়ার জন্য আগেরটি শুকিয়ে নিন।

— কৃত্রিম পাপড়িও ব্যবহার করতে পারেন। অল্প ঘন, বেশি ঘন বেশ কয়েক রকমের আইল্যাশ বা পাপড়ি বাজারে কিনতে পাওয়া যায়। বয়স ও পরিবেশ বুঝে তা ব্যবহার করতে পারেন।

মনে রাখুন

— আই মেকআপ রিমুভার বা কোনো ভালো লোশন দিয়ে খুব ভালোমতো চোখের মেকআপ তুলে ফেলুন।

— চোখের মেকআপ তোলার জন্য পরিষ্কার তুলা বা কাপড় ব্যবহার করবেন।

— খুসকি হলে চুলকানো এবং চোখ জোরে জোরে ঘষাঘষি করবেন না।

* নিয়মিত প্রোটিন এবং ভিটামিনসমৃদ্ধ সুষম খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন।

লেখক, উম্মে হানি

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –