• সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৮ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ওয়াদা করুন, নৌকায় ভোট দেবেন: প্রধানমন্ত্রী কুড়িগ্রামে জুয়া খেলার সরঞ্জামসহ সাত জুয়াড়ি গ্রেফতার এসএসসি-সমমানের পরীক্ষা শুরু ৩০ এপ্রিল হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পরীক্ষার ফি নির্ধারণ করবে সরকার নীলফামারী জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মমতাজুল, সম্পাদক অক্ষয়

কুড়িগ্রামে ক্রীড়া সংস্কৃতির ঐতিহ্য ধরে রাখছে চেয়ারম্যান পাড়া

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৯ জানুয়ারি ২০২৩  

কুড়িগ্রামে ক্রীড়া সংস্কৃতির ঐতিহ্য ধরে রাখছে চেয়ারম্যান পাড়া              
‘ক্রীড়াকেই এগিয়ে নিয়ে মাদককে দূরে রাখি’ শীর্ষক স্লোগানকে সামনে রেখে কুড়িগ্রামে ক্রীড়া সংস্কৃতির ঐতিহ্য ধারণ ধরে লাখো মানুষের মাঝে ক্রীড়া বিনোদন দিয়ে যাচ্ছে ফুলবাড়ী উপজেলার চেয়ারম্যান পাড়াবাসী।

ফুলবাড়ী সদর ইউপির ৩ টি গ্রাম পূর্ব পানিমাছকুটি, পশ্চিম কুটিচন্দ্রখানা ও বিদ্যাবাগীশ গ্রামের  জিরো পয়েন্ট এলাকার চেয়ারম্যান পাড়াবাসী যেন সেই আদিকাল থেকেই ক্রীড়া সংস্কৃতির ঐতিহ্য ধারণ ধরে উদযাপন করে যাচ্ছে বছরের শীত মৌসুমে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড় দৌড়, দাঁড়িয়াবাঁধা ও লাঠি খেলা।

আমন ধান কাটার পর আমন চাষি জমি অনাবাদী থাকলেই শীত মৌসুমে শুরু করা হয় চেয়ারম্যান পাড়ায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠি খেলা, দাঁড়িয়া বাঁধা ও ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা। এরই ধারাবাহিকতায় প্রতিবছরের মতো এবারো এ প্রতিযোগিতার অয়োজন করেন ফুলবাড়ী উপজেলা সদরের চেয়ারম্যান পাড়ার এলাকাবাসী। 

চেয়ারম্যান পাড়াবাসী ৫ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার থেকে শুরু করে ৩ দিনব্যাপী গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড় দৌড়, দাঁড়িয়াবাঁধা ও লাঠি খেলা প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। বৃহস্পতিবার ওইদিন বিকেলে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে ঐতিহ্যবাহী খেলার প্রতিযোগিতা শুরু করা হয়। 

বিকেলে জাতীয় ও ক্রীড়া পতাকা উত্তোলন, ফিতা কেটে ও সুখের পায়রা উড়িয়ে দিয়ে ঐতিহ্যের এ খেলার উদ্বোধন করে ফুলবাড়ী ইউএনও সুমন দাস। উদ্বোধক সুমন দাস গ্রামাঞ্চলে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা আয়োজন করায় খেলার উদ্যোক্তাদের অভিনন্দন জানান।

উদ্বোধনের পরেই শুরু হয় লাঠি খেলা। এরপর শুরু হয় ঐতিহ্যবাহী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা। লাখো নারী-পুরুষ ক্রীড়ামনা মানুষের উপস্থিতিতে উদ্বোধনী খেলাটি সুষ্ঠুভাবেই সম্পন্ন হয়েছে। উদ্বোধনী খেলার সভাপতিত্ব করেন ফুলবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক কানাই চন্দ্র সেন।

ঐতিহ্যবাহী এসব খেলার প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় দিন শুক্রবার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন ফুলবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আহম্মদ আলী পোদ্দার রতন। এর সভাপতিত্ব করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী।

তৃতীয় দিন শনিবার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের ফাইনাল খেলার প্রধান অতিথি ছিলেন ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী সরকার। এতে সভাপতিত্ব করেন চেয়ারম্যান পাড়ার কৃতি সন্তান ফুলবাড়ী সদর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসেন বাদল।

ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলায় চ্যাম্পিয়ন হয় কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার ভাঙ্গামোড় ইউপির খোঁচাবাড়ী এলাকার শাকিল মিয়ার ঘোড়া। শাকিল মিয়াকে চ্যাম্পিয়ন শিরোপা অর্জনের জন্য একটি গরু পুরস্কার দেয়া হয়েছে।

ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় বিজয়ী হয়েছেন কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার হোলোখানা এলাকার আব্দুল লতিফ মিয়ার ঘোড়া। আব্দুল লতিফ মিয়াকে পুরস্কার হিসেবে দেয়া হয় একটি গর্ভবতী ছাগল। 

এছাড়াও ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অধিকার করে কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলার পাইকেরছড়া এলাকার ছুমোর মিয়ার ঘোড়া। ছুমোর মিয়াকে একটি মোবাইল ফোনের মূল্যের সমপরিমাণ টাকা পুরকার হিসেবে প্রদান করা হয়েছে।

৩ দিনব্যাপী এই প্রতিযোগিতামূলক খেলা উদযাপন কমিটির সভাপতি ছিলেন আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আলী সংগ্রামী, ক্যাশিয়ার আরিফুল ইসলাম হাসান। এর পৃষ্ঠপোষক ছিলেন ফুলবাড়ী সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ। খেলা গুলো পরিচালনা করেন ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব সুরত জামাল। 

খেলাটির সার্বিক দিক পর্যবেক্ষণে ছিলেন ক্রীড়ামনা আহম্মদ আলী বেহারীসহ চেয়ারম্যান পাড়ার উদ্যোমী সকল শ্রেণি পেশার মানুষ।

ঐতিহ্যবাহী এ খেলার প্রতিযোগীতা শুরুর আগে ভাগেই চেয়ারম্যান পাড়ায় নাগরদোলাসহ বিভিন্ন দোকানপাটের পসরা বসিয়েছিল ব্যবসায়ীরা। খেলা আয়োজক কমিটির উদ্যোগে সুষ্ঠুভাবে খেলার প্রতিযোগিতা সম্পন্ন করতে নেয়া হয় নানা নিরাপত্তা বিষয়ক কর্মকাণ্ড। 

ঘোড়ার দৌড়ের সময় ঘোড়া যাতে নির্দিষ্ট স্থান ছাড়া লক্ষ্যভ্রষ্ট না হয় এজন্য মাঠের পুরো সার্কেল জুড়ে বাঁশের বেঁড়া দেয়া হয়েছিল। ফলে ৩ দিনব্যাপী এসব খেলায় প্রতিদিনেই হাজারো নারী-পুরুষের সমাগম ঘটে। প্রতিযোগীতাটি সফল ভাবেই সম্পন্ন হয়।

ঐতিহ্যবাহী এ প্রতিযোগিতা উদযাপন কমিটির সভাপতি আনোয়ার হোসেন জানান, আমরা দীর্ঘদিন ধরে এখানে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়দৌড়, দাঁড়িয়াবাঁধা ও লাঠি খেলা প্রতিবছর উদযাপন করে থাকি। এ বছরও উদযাপন হলো। এবার এ খেলায় হাজার হাজার মানুষ উপস্থিত হয়েছেন।

খেলা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আলী সংগ্রামী জানান, ‘ক্রীড়াকেই এগিয়ে নিয়ে মাদককে দূরে রাখি- এই শীর্ষক স্লোগানকে সামনে রেখে আমরা চেয়ারম্যান পাড়ায় ঐতিহ্যবাহী গ্রাম বাংলার খেলাগুলো মানুষের সামনে তুলে ধরছি।

চেয়ারম্যান পাড়ার কৃতি সন্তান ফুলবাড়ী সদর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসেন বাদল জানান, চেয়ারম্যান পাড়াবাসীর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এই ঐতিহ্যবাহী ঘোড় দৌড়, দাঁড়িয়াবাঁধা ও লাঠি খেলা উদ্যাপন হচ্ছে বহুদিন থেকে। সামনে এ খেলা আরো সুন্দর অবয়বে ৭ দিনব্যাপী উদ্যাপনের উদ্যোগ নেয়া হবে। 

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –