• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

  • || ২৩ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করুন: প্রধানমন্ত্রী কোনো অজুহাতেই যৌন নিপীড়ককে ছাড় নয়: শিক্ষামন্ত্রী স্পর্শকাতর মামলার সাজা নিশ্চিত করতে হবে: আইজিপি চলতি মাসেই একাধিক কালবৈশাখীর শঙ্কা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশদ্রোহীরা মানুষকে কষ্ট দেয়: নাছিম

টাকা আত্মসাতের দায়ে কুড়িগ্রাম পোস্ট অফিসের ৬ কর্মকর্তার কারাদণ্ড

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২৪  

কুড়িগ্রাম পোস্ট অফিসের সহকারী পোস্ট মাস্টারসহ ৬ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে ৯ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন রংপুরের স্পেশাল জজ আদালত।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) এ রায় ঘোষণা করেন রংপুরের স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক মো. হায়দার আলী। পোস্ট অফিসের টাকা আত্মসাতের দায়ে দুদকের মামলায় দুটি ধারায় এ রায় দেওয়া হয়।

রায় ঘোষণার সময় ৬ আসামির মধ্যে ৪ জন উপস্থিত থাকলেও দুজন পলাতক ছিলেন। তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।


এছাড়াও রায়ে ১২ লাখ ২৫ হাজার ৪৯২ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- সহকারী পোস্ট মাস্টার মো. আবুল কালাম আজাদ, লেজার অপারেটর মো. হাবিবুর রহমান, একই পদের মো. আব্দুল মালেক ও অশোক কুমার নাথ, কাউন্টার অপারেটর মো. মতিউল ইসলাম, একই পদের মো. মওদুদ হাসান।

স্পেশাল জজ আদালতের সরকারি কৌশলী একেএম হারুনর রশীদ জানান, ২০০২ সাল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত চাকরিরত অবস্থায় কুড়িগ্রাম পোস্ট অফিসে জালিয়াতির মাধ্যমে ৬ লাখ ১৫ হাজার ৫৭৬ টাকা আত্মসাৎ করা হয়। এ ঘটনায় কুড়িগ্রাম পোস্ট অফিসের পরিদর্শক এসএম শাহাদাত সুলতান ২০০৫ সালের ৯ মে পোস্ট অফিসের ৬ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে আসামি করে মামলা করেন। মামলাটির তদন্ত পায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক মো. জাকারিয়া। তদন্তে টাকা আত্মসাতের বিষটি প্রমাণিত হওয়ায় ৬ জনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা। সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ আদালতে সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাদের বিরুদ্ধে এই রায় প্রদান করেন।

আদালত সূত্র জানায়, পেনাল কোডের ৪০৯/১০৯ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে প্রত্যেক আসামিকে ৬ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১২ লাখ ২০ হাজার ৪৯২ টাকা জরিমানা করা হয়। এই টাকা ২ মাসের মধ্যে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন আদালত।

পেনাল কোডের ২০১/১০৯ ধারায় প্রত্যেক আসামিকে ৩ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেন আদালত। পলাতক আসামি মো. মওদুদ হাসান ও অশোক কুমার নাথের বিরুদ্ধে সাজা পরোয়ানাসহ গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –