• রোববার   ২৫ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১০ ১৪২৮

  • || ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

ফ্রিজে আম রাখলে যা হয়

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩ জুলাই ২০২১  

আম মৌসুমি ফল, সেই সঙ্গে পচনশীলও। গ্রীষ্মকাল ছাড়া আম পাওয়া যায় না। এজন্য সারাবছরই যাতে আমের স্বাদ পাওয়া যায়, তাই অনেকেই এই ফলটি ফ্রিজে সংরক্ষণ করেন। এছাড়া বেশি পরিমাণে কিনে আনার পর যাতে পচে না যায় তাই অনেকেই আম ফ্রিজে রেখে খান।

এদিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আম ফ্রিজে রাখা একদমই ঠিক নয়। কারণ তাতে স্বাদ বদলে যাওয়ার পাশাপাশি স্বাস্থের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব পড়তে পারে। চলুন এই বিষয়ে জেনে নেয়া যাক বিস্তারিত-

স্বাভাবিক তাপমাত্রায় সংরক্ষণ

আমে পানির পরিমাণ থাকে অনেক বেশি। তাই আম খেলে তা শরীর ভেতর থেকে আর্দ্র রাখে এবং সানস্ট্রোক থেকেও রক্ষা করে। তবে এই ফল ফ্রিজে না রাখাই উত্তম। বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিচ্ছেন এই ফল বাইরে রেখে খেতে। কারণ স্বাভাবিক তাপমাত্রায় এটি বেশি ভালো থাকে অর্থাৎ পুষ্টিগুণ অটুট থাকে।

কাটা আম ফ্রিজে রাখা যাবে কি?

বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিচ্ছেন, কাটা আম ফ্রিজে সংরক্ষণ না করার। আপনি যদি আম কেটে ফ্রিজে রাখেন তবে তা শরীরের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। সেইসঙ্গে রং ও স্বাদ অনেকটা ম্লান হয়ে যায়। আবার কাটা ফল ফ্রিজে রাখলে তার মাধ্যমে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের ভয় থেকে যায়।

আম ফ্রিজে রাখলে পুষ্টিগুণে হেরফের হয়

গবেষকদের দাবি, আম ফ্রিজে রাখলে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের গুণ নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় থাকে। আম স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রাখলেই বরং বেশি সুস্বাদু লাগে। সেইসঙ্গে বজায় থাকে এর পুষ্টিগুণও। তাই খুব বেশি দরকার না হলে আম ফ্রিজে রাখা থেকে বিরত থাকুন। দরকারে রাখতে পারেন। সেক্ষেত্রে খুব বেশিদিন না রাখাই ভালো।

সবজির সঙ্গে রাখবেন না

আম বা যেকোনো ফল সবজির সঙ্গে একসঙ্গে রাখবেন না। এর বদলে আলাদা সংরক্ষণ করুন। এর কারণ হলো, ফল ও সবজি থেকে বিভিন্ন ধরনের গ্যাস নির্গত হয়। তাই এগুলো একসঙ্গে রাখলে স্বাদ, গন্ধ ও পুষ্টিতে পরিবর্তন হতে পারে।

– কুড়িগ্রাম বার্তা নিউজ ডেস্ক –